মোদির রাষ্ট্রীয় আমন্ত্রণ বাতিলের দাবিতে ৬ মার্চ দেশব্যাপী বিক্ষোভ করবে সমমনা ইসলামী দলসমূহ

301

দিল্লীতে সপ্তাহব্যাপী চলমান পরিকল্পিত মুসলিম গণহত্যা, মুসলমানদের মসজিদ, বাড়ি-ঘর, দোকানপাট ও সহায়-সম্পদের উপর হিন্দুত্ববাদিদের দলবদ্ধ তাণ্ডব ও আগুন সন্ত্রাসের প্রতিবাদ এবং মুসলিম গণহত্যার মূল খলনায়ক নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশ সফরের রাষ্ট্রীয় আমন্ত্রণ বাতিলের দাবিতে আগামী ৬ মার্চ শুক্রবার দেশব্যাপী বিক্ষোভ ও ঢাকায় গণমিছিলের কর্মসূচি দিয়েছে ইসলামী সমমনা দলসমূহ।

আগামী ৬ মার্চ শুক্রবারের গণমিছিল বাস্তবায়নের লক্ষ্যে ২ মার্চ সোমবার মোহাম্মদপুর, ৩ মার্চ মঙ্গলবার মিরপুর, ৪ মার্চ বুধবার যাত্রাবাড়ীসহ রাজধানী ঢাকার বিভিন্ন জোনভিত্তিক বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে। দলসমূহের জেলাভিত্তিক কমিটির প্রতিও ৬ মার্চের বিক্ষোভ কর্মসূচী সফল বাস্তবায়নের লক্ষ্যে সমন্বিত ব্যাপক গণসংযোগসহ সাংগঠনিক প্রস্তুতি নিতে বলা হয়েছে।

আজ (২৯ ফেব্রয়ারি) শনিবার বাদ যোহর জমিয়ত উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশ’র মহাসচিব আল্লামা নূর হোসাইন কাসেমীর সভাপতিত্ব বারিধারাস্থ জমিয়ত মহাসচিবের কার্যালয়ে সমমনা ইসলামী দলসমুহের এক জরুরী বৈঠকে এ কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়।

বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশ’র সহসভাপতি মাওলানা আব্দুর রব ইউসূফী, বাংলাদেশ খেলাফত মজলিসের মহাসচিব মাওলানা মাহফুজুল হক, খেলাফত মজলিসের মহাসচিব ড. আহমদ আব্দুল কাদের, মুসলিম লীগের মহাসচিব কাজী আবুল খায়ের, ইসলামী ঐক্য আন্দোলনের মহাসচিব অধ্যাপক মাওলানা মোস্তফা তারেকুল হাসান, খেলাফত মজলিসের যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা আহমদ আলী কাসেমী, জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশ’র যুগ্মমহাসচিব মাওলানা ফজলুল করীম কাসেমী, মুফতি মনির হোসাইন কাসেমী, বাংলাদেশ খেলাফ মজলিসের যুগ্মমহাসচিব মাওলানা জালাল উদ্দিন, খেলাফত মজলিসের সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা তোফাজ্জল হোসেন মিয়াজি, ইসলামী ঐক্য আন্দোলনের সাংগঠনিক সম্পাদক ডা. সাখাওয়াত হুসাইন, জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশের প্রচার সম্পাদক মাওলানা জয়নুল আবেদীন, বাংলাদেশ খেলাফত মজলিসের সহপ্রচার সম্পাদক মাওলানা ফয়সল আহমদ, মাওলানা এবিএম শরীফুল্লাহ, মাওলানা ছানাউল্লাহ মাহমুদী প্রমুখ।

বৈঠকে সভাপতির বক্তব্যে জমিয়ত মহাসচিব আল্লামা নূর হোসাইন কাসেমী বলেন, যে নরন্দ্র মোদির প্রত্যক্ষ মদদে ভারতের পুলিশ এবং হিন্দুত্ববাদি গুণ্ডারা দিল্লিতে মুসলিম গণহত্যা চালিয়েছে, মুসলমানদের ঘর-বাড়ী, মসজিদ-মাদরাসায় অগ্নিসংযোগ করেছে, সম্পদ লুটপাট করেছে, সেই নরেন্দ্র মোদি বাংলাদেশের মাটিতে পা রাখবে আমাদের দেশের শান্তিপ্রিয় জনতা এটা কখনোই বরদাস্ত করবে না

জমিয়ত মহাসচিব আরো বলেন, আমাদের প্রিয় মাতৃভূমির শান্তি-শৃঙ্খলা ও সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি অটূট রাখার স্বার্থে এবং আমাদের প্রতিবেশী রাষ্ট্র ভারতে মুসলমানদের বিরুদ্ধে সাম্প্রদায়িক ঘৃণ্য প্রচারণা ও লাগাতার হিংসাত্মক ঘটনার প্রতিবাদে সম্প্রদায়িক, বর্ণবিদ্বেষী ও খুনি মোদির বাংলাদেশ সফরের আমন্ত্রণ সরকারকে অবশ্যই বাতিল করতে হবে।

আল্লামা নূর হোসাইন কাসেমী বলেন, আমরা শান্তির পক্ষে, সম্প্রীতির পক্ষে, সহনশীল সমাজ ব্যবস্থার পক্ষে এবং সকল স্তরে ন্যায়-ইনসাফ ও সুবিচারের পক্ষে। আমরা চাই আমাদের দেশে বিভিন্ন ধর্মমতের মানুষের সামাজিক সম্প্রীতি অটূট থাকুক। আমাদের বিশ্বাস, সরকার বাংলাদেশের মুসলমানদের মনোভাব বুঝতে পারবে এবং দেশের শান্তি-শৃঙ্খলা ও সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির স্বার্থে মোদির সফর বাতিল করবে।

জমিয়ত মহাসচিব হুঁশিয়ারী উচ্চারণ করে বলেন, সরকার যদি মোদির সফর বাতিল না করে, তাহলে দল-মত নির্বিশেষে দেশের সকল মানুষকে ঈমানী চেতনাবোধ, দেশপ্রেম ও মানবিক দায়িত্ববোধের জায়গা থেকে রাজপথের আন্দোলনে জোরদার অংশ গ্রহণ করতে হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here