হাতুড়ি দিয়ে মহিলা লীগ নেত্রীর ২ পা ভেঙে দিল যুবলীগ নেতা!

232

ঢাকার আশুলিয়ায় ডিশ ব্যবসা নিয়ে দ্বন্দ্বে হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে যুব মহিলা লীগ নেত্রী মনিকা হাসানের (২৮) পা ভেঙে দেয়ার অভিযোগ উঠেছে যুবলীগ নেতা সোহাগ (২৭) ও তার লোকজনের বিরুদ্ধে।

প্রতিপক্ষ সোহাগ ডিশ ব্যবসার ফিডারের পরিচালক ও যুবলীগের ধামসোনা ইউপির ৭ নং ওয়ার্ডের সহ-সভাপতি।

শনিবার বিকাল সাড়ে ৩টায় আশুলিয়ার দক্ষিণ বাইপাইল (চারালপাড়া) এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে আশুলিয়া থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

সরেজমিন জানা গেছে, শনিবার বিকালে হঠাৎ মহিলা যুবলীগের নেত্রী মনিকা হাসানের নেতৃত্বে ২০-৩০ জনের একটি দল সোহাগের মালিকানাধীন গোল্ড স্যাটেলাইটের ডিশের তার কাটতে থাকে। এ সময় ওই অফিসের কর্মচারীরা বাধা দিলে তারা ফিড অফিসে অতর্কিত হামলা চালায় এবং অফিসের মালামাল লুটপাটসহ ডিশ ক্যাবল কেটে নিয়ে যায়।

এ সময় সোহাগের ভাগিনা শাকিল (২২) লুটপাটকারীদের ছবি ছাদের ওপর থেকে ধারণ করতে থাকলে তা দেখে মনিকার নির্দেশে তার লোকজন শাকিলকে বেদম মারধর করে। আহত অবস্থায় শাকিলকে ধামরাই স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন স্থানীয়রা।

পরে সোহাগ ও এলাকাবাসী একত্র হয়ে মনিকার লোকজনকে ধাওয়া করে। এ সময় হামলাকারীরা মনিকাকে লাঠিসোটা ও হাতুড়ি দিয়ে বেদম মারপিট করে।

এতে তার দুই পা ও শরীরের বিভিন্ন অঙ্গ আঘাতপ্রাপ্ত হয়। পরে তার আত্মীয়রা তাকে সাভার এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিদর্শন করেন এবং ডিশ অফিসের ম্যানেজার আমির হোসেনকে আটক করে।

অপর দিকে আহত শাকিল হোসেনকে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে তার পিতা গোলাম মোস্তফা আশুলিয়া থানায় অভিযোগ দিতে গেলে পিতা ও পুত্রকে পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে বলে তাদের পরিবার সূত্র জানিয়েছে।

এ সম্পর্কে যুবলীগ নেতা সোহাগ জানান, দীর্ঘদিন যাবৎ তিনি ডিশ ব্যবসাটি পরিচালনা করছেন। হঠাৎ তার প্রতিবেশী যুব মহিলা লীগের আশুলিয়া থানা আহ্বায়ক মনিকা হাসান তার ব্যবসাটি দখলে নিতে পাঁয়তারা করে আসছে। এ ঘটনায় বিভিন্নভাবে তাকে হয়রানি করে তার ডিশ ব্যবসাটি দখলে নিতে মরিয়া হয়ে ওঠে।

এ বিষয়ে কিছুদিন পূর্বে ঢাকা জেলা পুলিশ সুপার বরাবরে মনিকাকে শ্লীলতাহানির অভিযোগে আবেদন করা হয়েছিল। ওই ঘটনায় ঢাকা জেলা এডিশনাল এসপি সাইদুর রহমান বিষয়টির নিষ্পত্তি করে দেয় উভয় গ্রুপের উপস্থিতিতে। এ নিষ্পত্তির ১৫ দিনের মধ্যেই ডিশ ব্যবসাটি দখলে নিতে মনিকা আবারও হামলা চালিয়ে তার অফিস ভাংচুর, মালামাল লুটপাটসহ মারধরের ঘটনা ঘটায়।

মনিকার আশুলিয়া থানার অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, শনিবার আশুলিয়ার দক্ষিণ বাইপাইল এলাকায় নিজ বাড়িতে যাওয়ার সময় দক্ষিণ বাইপাইল এলাকায় পৌঁছলে রাস্তার মধ্যে আগে থেকে ওঁৎপেতে থাকা ডিশ ব্যবসায়ী যুবলীগ নেতা সোহাগ হোসেন ও তার সঙ্গীয়রা ডিশ ব্যবসার জের ধরে তাকে লাঠিসোটা ও হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে দুই হাত ও দুই পা আহত করে। পরে তাকে দ্রুত উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য সাভারের এনাম মেডিকেল কলেজ অ্যান্ড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

খবর পেয়ে পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও সাভার উপজেলা পরিষদের ভাইস-চেয়ারম্যান শাহাদাৎ হোসেন খান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

এ বিষয়ে আশুলিয়া থানার ওসি শেখ রিজাউল হক দিপু বলেন, যারাই এ হামলা চালিয়েছে এবং রক্তাক্ত জখম করেছে তাদের আটকের প্রক্রিয়া চলছে। এ ঘটনায় আশুলিয়া থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here